I am a young women of color. My world is not limited to the of black & white. বর্ণবাদের এই কবিতার সাথে স্তব্ধ হংকং এর ওয়াই থিয়েটারের মঞ্চ । মন্ত্রমুগ্ধের মত বিচারক এবং দর্শক মণ্ডলী উপভোগ করেছে কারিশমা সাংস্কৃতিক দলের পরিবেশনা। গত ২রা মার্চ ,২০১৯ হংকং এর Y theater এ অনুষ্ঠিত হল অটিস্টিক ট্যালেন্ট গালা ০৬। অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিল হংকং এর শিক্ষামূলক প্রতিষ্ঠান AnAn International Education Foundation.

প্রতিষ্ঠানটি প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলভুক্ত দেশ গুলো থেকে অটিজমসম্পন্ন ব্যক্তিদের নাচ, গান, বাদ্যযন্ত্র এবং সাংস্কৃতিক অঙ্গনে প্রতিভা তুলে ধরে অটিস্টিক ট্যালেন্ট গালা অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে।

প্রতিবছরের মতো অ্যানঅ্যান ইন্টারন্যাশনাল হংকং এবারও অটিস্টিক ট্যালেন্ট গালার ফাইনালে  অংশগ্রহণ এর জন্য প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলভুক্ত দেশ গুলো থেকে অটিজমসম্পন্ন ব্যক্তিদের নাচ, গান, বাদ্যযন্ত্র সহ বিভিন্ন পরিবেশনার ভিডিও আহ্বান করা হয়। প্রায় ৫০ টি ভিডিও এর মধ্যে ১৪ টি ভিডিও নির্বাচিত হয় নির্দিষ্ট  জুরি বোর্ডের সিদ্ধান্ত এবং অনলাইন ভোটিং এর মাধ্যমে। । এই  ১৪ টি গ্রুপ অংশ নেয় অটিস্টিক ট্যালেন্ট গালা ২০১৯ এর ফাইনালিস্ট হিসেবে ।

স্নায়ুবিক প্রতিবন্ধিতায় আক্রান্তদের নিয়ে প্রথম সাংস্কৃতিক দল ২য় বারের মত ফাইনালিস্ট হিসেবে নির্বাচিত হয় এবং ফাইনালে তাদের পরিবেশনা উপস্থাপন করে। কারিশমা সাংস্কৃতিক দল বর্ণবাদের বিরুদ্ধে তাদের পরিবেশনা সবার সামনে তুলে ধরে। বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নৃত্যনাট্য “চণ্ডালিকা” অবলম্বন “Radiance of Love” এ কারিশমা সাংস্কৃতিক দলের শিল্পীদের অভিনয় মন্ত্রমুগ্ধের মত উপভোগ করেছে। পরিবেশনাটির  শুরুতেই বর্ণবাদের একটি কবিতার সাথে কোরিওগ্রাফের মাধ্যমে নৃত্যনাট্যটির মূল চরিত্র বর্ণবাদের ফলে সৃষ্ট  সমস্যার বিষয় গুলো তুলে ধরেছে। এর পরেই সমাজের তার প্রতি ঘৃণা তাকে অনেক কষ্ট দেয়। এরপরেই একজন বৌদ্ধ শিস্য এই বর্ণবাদের বিরোধিতা করে এবং সবার ভেতরে ভালোবাসার দীপ্তি ছড়িয়ে দেয়।

কারিশমা সাংস্কৃতিক দলের অভিনয়, পোশাক  এবং নাটকের নান্দনিক সেটের এক অপূর্ব সংমিশ্রন হয়েছিল ওয়াই থিয়েটারের মঞ্চে। অনুষ্ঠানে আগত অন্যান্য অংশগ্রহণকারী এবং দর্শক, বিচারক গণ পরিবেশনাটির ভূয়সী প্রশংসা করেন। পরিবেশনাটি শেষে বাংলাদেশের কন্সোলেট জেনারেলকে মঞ্চে আহ্বান জানানো হয় । তিনি বললেন যে তিনি বাকরুদ্ধ। তিনি ভাবতেই পারছেন না এত অল্প সময়ে কিভাবে এই ধরনের পারফরম্যান্স করা সম্ভব। তিনি কারিশমা দলের সাফল্য কামনা করেন। কারিশমা সাংস্ক্রতিক দলের সভাপতি জনাব সাজিদা রহমান ড্যানি বলেন যে বর্ণবাদের মতো করে এই সকল বিশেষচাহিদা সম্পন্নদের আলাদা করে দেয়া হচ্ছে।  “Radiance of Love” এর মাধ্যমে এই বিশেষচাহিদাসম্পন্নদের ঘৃণা না করে  তিনি সবাইকে ভালবাসায় একাত্ম হয়ে যাবার কথা বলেছেন ।

কারিশমা  সাংস্কৃতিক দল অটিস্টিক ট্যালেন্ট গালা ০৬ এ বেস্ট ভিস্যুয়াল ইফেক্টস এবং বেস্ট ভিডিও পারফরম্যান্স এ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়। কারিশমা দলের ১১ জন প্রশিক্ষণার্থী ,৪ জন প্রশিক্ষক এবং দলটির সভাপতি  জনাব সাজিদা রহমান ড্যানি মঞ্চে এসে পুরস্কারগুলো গ্রহণ করে। কারিশমা  সাংস্কৃতিক দলের এই ট্রিপ টি স্পন্সর করে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক।

এখাণে ঊল্লেখ যে ২০১৭ সালে কারিশমা  সাংস্কৃতিক দল অটিস্টিক ট্যালেন্ট গালা ২০১৭ এ বেস্ট ভিস্যুয়াল ইফেক্টস এ্যাওয়ার্ড অর্জন করে।।

Leave a Reply