৮ই এপ্রিল ,২০১৯ রোজ সোমবার  সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিটে বাংলাদেশ মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহিম হল ১২ তম বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস উপলখ্যে পিএফডিএ ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টার আয়োজন করেছে অটিজম সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান “উত্তরণ” অনুষ্ঠানের । উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন ডক্টর দিপু মনি, মাননীয় মন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন জনাব কে এম খালেক, প্রতিমন্ত্রী, সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়, এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে মাননীয় সিনিয়র সচিব, জনাব জুয়েনা আজিজ, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও শারীরিক অসুস্থতার দরুন তিনি উপস্থিত হতে পারেন নি এবং তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। আরও ছিলেন পিএফডিএ-ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টারের অটিজম বিষয়ক শুভেচ্ছাদুত, আমাদের প্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমি এবং প্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস, ছিলেন জনাব কাজি আমিন, এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন বোর্ড, সুশান্ত কুমার প্রামানিক,অতিরিক্ত সচিব(প্রতিষ্ঠান ও প্রতিবন্ধিতা)সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় , বিএসআরএম এর সিএসআর প্রধান জনাব রুহি মুর্শিদ আহমেদ, জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ওমরসানি, জনপ্রিয় ক্রিকেট তারকা মোঃ আশরাফুল , স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার প্রতিনিধি সঞ্জয় আম্বাস্থি।   অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেছেন প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান জনাব সাজিদা রহমান ড্যানি ।

অনুষ্ঠানটি ৩ ভাগে বিভক্ত  ছিল। ১ম পর্বে পিএফডিএ ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টার পরিচালিত সাংস্কৃতিক দল “কারিশমা” এর পরিবেশনা কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের   চন্ডালিক অবলম্বনে “Radiance of Love” পরিবেশিত হয়। এই পরিবেশনার মাধ্যমে কোন প্রকার বৈষম্যের বিপক্ষে তাদের সুস্পষ্ট অবস্থানকে তুলে ধরেছে ।

২য় পর্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান জনাব সাজিদা রহমান ড্যানি।

এর পরে সেলফ এডভোকেট হিসেবে নিজের কথা বলেছেন অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন ব্যক্তি মোঃ সিয়াম উল করিম।

আগতদের উত্তরীয় পড়িয়ে সম্মাননা প্রদান করেন সেন্টারের প্রশিক্ষণার্থীগণ।

বক্তব্য প্রদান পর্বে বক্তব্য রাখেন ডক্টর দিপু মনি, মাননীয় মন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়।মাননীয় মন্ত্রী অটিজম এবং অন্যান্য প্রতিবন্ধিতা সম্পন্ন ব্যক্তিদের শিক্ষার সরকারী পদক্ষেপগুলো তুলে ধরেন। তিনি পিএফডিএ- ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টারের কার্যক্রমকে এসডিজির প্রতিফলন হিসেবে আখ্যা দেন। তিনি আরও বলেন পরিমাণগত নয় বরং গুনগত সেবার দিকে  সরকার এখন অধিক মনযোগী আর তাই পিএফডিএ- ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টারের কার্যক্রমকে তিনি সাধুবাদ দেন। সেই সাথে তিনি অনুষ্ঠানের প্রথমে পরিবেশিত “Radiance of Love”  এর সূত্র ধরে বলেন এই পরিবেশনায় তিনি অত্যন্ত মুগ্ধ এবং কারিশমার সাথে  যেকোন বৈষম্যের বিপক্ষে অবস্থানের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেন  ।

বক্তব্য রাখেন জনাব কে এম খালেক, প্রতিমন্ত্রী, সাংস্কৃতিক মন্ত্রণালয়, সুশান্ত কুমার প্রামানিক,অতিরিক্ত সচিব(প্রতিষ্ঠান ও প্রতিবন্ধিতা)সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়।আরও বক্তব্য রাখেন বিএসআরএম এর সিএসআর প্রধান জনাব রুহি মুর্শিদ আহমেদ, স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার কান্ট্রি হেড কান্ট্রি হেড মি. সঞ্জয় আম্বাস্থা, জনপ্রিয় ক্রিকেট তারকা মোঃ আশরাফুল, পিএফডিএ-ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টারের অটিজম বিষয়ক শুভেচ্ছাদুত, প্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমি এবং প্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস, জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ওমরসানি ।

অনুষ্ঠানের ৩য় পর্বে ছিল মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক নাটক “মানচিত্রের জন্য”। এই নাটকে অভিনয় করে কারিশমা সাংস্কৃতিক দলের  ৩০ জন প্রশিক্ষণার্থী। নাটকটির এটি ছিল ৪র্থ মঞ্চায়ন।

মানচিত্রের জন্য নাটকটি অনুষ্ঠানে আগত দর্শকের মুগ্ধ করে এবং নাটক শেষে মাননীয় মন্ত্রী , পিএফডিএ-ভোকেশনাল ট্রেনিং সেন্টারের অটিজম বিষয়ক শুভেচ্ছাদুত, প্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমি এবং প্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস,  এবং অন্যান্য অতিথিবৃন্দ মঞ্চে এসে প্রশিক্ষণার্থীদের সাথে দেখা করেন, কথা বলেন এবং ফটোসেশনে অংশ নেন। উল্লেখ্য যে কারিশমা সাংস্কৃতিক দল  স্নায়ুবিক প্রতিবন্ধিতাসম্পন্নব্যক্তিদের জন্য বাংলাদেশের প্রথম সাংস্কৃতিক দল যা বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর নিয়মিত সদস্য।

Leave a Reply